মালিতে নিহত সেনা সদস্য জামালের চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাড়িতে শোকের মাতম

151


পশ্চিম আফ্রিকার দেশ মালিতে রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে নিহত জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী বাহিনীর সদস্য বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সৈনিক মোঃ জামাল উদ্দিনের চাঁপাইনবাবগঞ্জের বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। পুরো এলাকাজুড়ে নেমে এসেছে শোকের ছায়া।


প্রয়াত এই সেনাসদস্যর বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার ঘোড়াপাখিয়া ইউনিয়নের ধুমিহায়াতপুর ঘাইসাপাড়া গ্রামে। ওই গ্রামের ব্যবসায়ী মেসের আলীর বড় ছেলে জামাল উদ্দিন। ২০০৫ সালে সৈনিক হিসেবে যোগ দেন বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে। গত ৯ মাস আগে জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে যোগ দিতে মালিতে যান তিনি। জামালের স্ত্রী ও সাড়ে ৫ বছরের একটি সন্তান রয়েছে। গত বুধবার মালির মোপ্তি এলাকার একটি সড়কে গাড়ীতে করে যাওয়ার সময় রাস্তার পাশে পুঁতে রাখা মাইন বিস্ফোরণে নিহত হন জামালসহ চার শান্তিরক্ষী। বুধবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে সেনা সদর দপ্তর থেকে টেলিফোনে বিষয়টি জনানো হয় জামালের পরিবারকে। এরপর থেকেই এই বাড়িতে চলছে শোকের মাতম। বৃহস্পতিবার সকালে জামালের বাড়িতে গিয়ে দেখা যায় শোকাবহ পরিবেশ। ছেলেকে হারিয়ে শোকে পাথর হয়ে গেছেন জামালের মা ফেরদৌসী বেগম। বার বার মুর্ছা যাচ্ছিলেন জামালের স্ত্রী ফাহিমা আকতার শিল্পি। ভাইকে হারিয়ে ছোট বোন সালমা খাতুনও বিলাপ করছিলেন। তাকে কোনভাবেই শান্ত করতে পারছিলেন না স্বজনরা। তাদের শান্তনা দিতে গিয়ে কেঁদেছেন এলাকার মানুষও। জামালের বাবা মেসের আলী জানান, সোমবার সকাল ১১টায় জামালের সঙ্গে শেষ কথা হয়েছে তার। এসময় জামাল বাবাকে জানায়, মালির অন্য কোন এক জায়গায় যেতে হবে তাদের। এজন্য বাবার কাছে দোয়া চেয়েছিল সে। এরপর বুধবার রাতে তাকে সেনা সদর দপ্তর থেকে ফোন করে জামালের মৃত্যু খবর জানানো হয়।