শিবগঞ্জের সেরিনা হত্যা মামলার রায়ে এক নারীসহ ২ জনের মৃত্যুদ-

43

চাঁপাইনবাবগঞ্জে সেরিনা বেগম হত্যা মামলার রায়ে এক নারীসহ ২ জনকে মৃত্যুদ- ও ১০ হাজার টাকা জরিমানার আদেশ দিয়েছে আদালত। রবিবার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ শওকত আলী এই রায় ঘোষনা করেন। দ-প্রাপ্ত আসামিরা হলো, জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার মোহনবাগ এলাকার মৃত কান্তু মন্ডলের ছেলে আব্দুল মান্নান ও তার ২য় স্ত্রী সুফিয়া বেগম। অপরাধ প্রমাণিত না হওয়ায় মামলার অপর আসমি আবুল বাসারকে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।
চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা জজ আদালতের অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর(পিপি) অ্যাডভোকেট আঞ্জুমান আরা মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরনে জানান, জেলার শিবগঞ্জের রশিকনগর বাবুপুর গ্রামের শফিকুল ইসলামের তালাকপ্রাপ্ত স্ত্রী ও পৌর এলাকার দেওয়ান জায়গীর মহল্লার বাসিন্দা সেরিনা বেগমের সাথে পরিচয় হয় আসামি মান্নানের স্ত্রী সুফিয়া বেগমের। ব্যাক্তিগত দ্বন্দ্বের জের ধরে ২০১৪ সালের ১০ সেপ্টেম্বর রাতে আসামি আব্দুল মান্নান তার স্ত্রী সুফিয়ার সহায়তায় সেরিনা বেগমকে সেলিমাবাদ এলাকার একটি আমবাগানে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ করার পর তাকে শ^াসরোধ করে হত্যা করে এবং তার গলায় ওড়না পেচিয়ে আম গাছে ঝুলিয়ে রাখে। পরের দিন ১১ সেপ্টেম্বর সকালে পুলিশ সেরিনার ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় নিহত সেরিনার ছেলে আরিফ হোসেন বাদি হয়ে শিবগঞ্জ থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা শিবগঞ্জ থানার এসআই লুৎফর রহমান ২০১৫ সালের ৩১ মে ৩জনকে অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। স্বাক্ষীর স্বাক্ষ্য গ্রহন ও যুক্ত তর্ক শেষে আদালত বিচারক এই রায় প্রদাণ করেন।