1. admin@chapaisangbad.net : কপোত নবী : কপোত নবী
  2. kapotnabi17@gmail.com : Kapot Nabi : Kapot Nabi
News Headline :
সীমান্ত রক্ষায় গর্বিত সৈনিক —- বিজিবির কষ্ট লাঘবে স্থায়ী পাঁকা চেকপোস্ট ঘর নির্মাণ দরকার গত চার মাসে চাঁপাইনবাবগঞ্জে ১৬ জনসহ সারাদেশে ১৭৭ জনের প্রাণহানি  চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুক্রবার পর্যন্ত নতুন শনাক্ত ৩২ জন করোনা সনাক্তের হার নেমে ১১.২৬% আম নিয়েই যার কর্মযজ্ঞ – আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জের “আম মানব” গণমাধ্যম কর্মী আহসান হাবিব চাঁপাইনবাবগঞ্জের চিকিৎসকবৃন্দ করোনাকালে সবচেয়ে বড় যোদ্ধা || ডাক্তারদের উদ্যোগে বিনামূল্যে অক্সিজেন সেবা শিবগঞ্জে বিজিবির বিশেষ অভিযানে বিপুল পরিমাণ মাদক উদ্ধার || জোরদার করা হয়েছে টহল চাঁপাইনবাবগঞ্জে বজ্রপাতে আবারও প্রাণ গেলো কিশোরীসহ ৩ জনের কর্মহীন ২০০ পরিবারের মাঝে গোমস্তাপুরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেয়া ত্রাণের চাল বিতরণ  শিবগঞ্জের কমলাকান্তপুরে র‌্যাবের হাতে ১ কেজি ২৫০ গ্রাম গাঁজাসহ ১ যুবক আটক নামোশংকরবাটী বাগানপাড়ায় ২ কোটি টাকার হেরোইনসহ লোকমানকে আটক করেছে র‌্যাব
মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক কী তাহলে মারা যাবে? কিছুই কি করার নেই কারও?

মানুষ গড়ার কারিগর শিক্ষক কী তাহলে মারা যাবে? কিছুই কি করার নেই কারও?

হাবিবুল বারি হাবিব, চাঁপাই সংবাদ রিপোর্ট 
আমের রাজধানী চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায় ২১ বছর ধরে বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চাকরি করে এখন পর্যন্ত পাননি সরকারি বেতন-ভাতা। বর্তমানে প্যারালাইসিস সহ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত তিনি। অর্থাভাবে উপযুক্ত চিকিৎসা না পেয়ে দূর্বিষহ জীবন পার করছেন এক শিক্ষক।
শিবগঞ্জের মনাকষা ইউনিয়নের সাত রশিয়ার মো: তারিফ হোসেন ২০০০ সালে উপজেলার বিনোদপুর ইউনিয়নের রশুনচক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সহকারি শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেয়ে অদ্যাবধি শিক্ষকতা করেই আসছেন।
কিন্তু স্কুলটি এমপিও ভুক্ত হলেও সহকারি শিক্ষক তারিফ হোসেনসহ কয়েকজন শিক্ষক এখন পর্যন্ত কোন সরকারি বেতন-ভাতা না পেয়ে কষ্টেই কাটাছে জীবন। গত ১ বছর যাবৎ বিভিন্ন জটিল রোগে আক্রান্ত হয়ে বাবার সামান্য সম্পদ থেকে চিকিৎসা নিচ্ছিলেন তিনি। কিন্তু গত ৬ মাস যাবৎ সারা শরীরে ঘা হয়ে জটিল এক রোগে আক্রান্ত হলে উন্নত চিকিৎসার প্রয়োজন হয় তাঁর।
কিন্তু পরিবার ও স্বজনদের সহযোগীতা নিয়েও উন্নত চিকিৎসার অর্থ যোগাড় করতে হিমশিম খাচ্ছিলেন তিনি। এরই মাঝে গত ২ মাস থেকে আবারো প্যারালাইসিসে আক্রান্ত হলে চরম দূর্বিষহ হয়ে ওঠে এই শিক্ষকের জীবন। উন্নত চিকিৎসা তো পাচ্ছেন না, বরং বর্তমানে খাওয়া ও পরা সহ ব্যক্তিগত সকল কাজেই তিনি অক্ষম হয়ে পড়েছেন।
তারিফ জানান, দীর্ঘ ২১ বছর যাবৎ আমি সরকারি এমপিওভুক্ত একটি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে চাকরি করে আসছি। কিন্তু এখন পর্যন্ত কোন প্রকার বেতন-ভাতা আমি পাইনি। অদ্যাবধি আমি সরকারের সুদৃষ্টির অপেক্ষাই রয়েছি। আমার মতো হতভাগা আর কেউ নেই। বর্তমানে বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে আমি চরম অসহায় হয়ে পড়েছি। পরিবার ও স্বজনদের সহযোগীতা নিয়ে কোন রকমে এই পর্যন্ত জীবন অতিবাহিত করলেও বর্তমানে আমি সর্বদিক দিয়েই অক্ষম হয়ে পড়েছি।
ঔষধ কেনার পয়সাও আমার কাছে নেই। আমি বাঁচতে চাই। বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি সহ আমার উন্নত চিকিৎসার জন্য সরকার, জেলা প্রশাসক মহোদয়, উপজেলা প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধি গণের নিকট দোয়া ও সহযোগীতার আবেদন করছি। মিডিয়ার সামনে এসব অসহায়ত্বের কথা জানানোর সময় কেঁদে ফেলেন সেই শিক্ষক।
এসব বিষয়ে জানতে চাইলে রশুনচক বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো: রফিকুল ইসলাম বলেন, মো: তারিফ হোসেন অত্র বালিকা উচ্চবিদ্যালয়ে দীর্ঘদিন যাবৎ শিক্ষকতা করে আসছেন।
এমপিওভুক্ত না হওয়ায় তিনি এখন পর্যন্ত কোন সরকারি বেতন-ভাতা পাননি। তবুও বেতনের আশায় তিনি অনেক চেষ্টা করে যাচ্ছেন। আমরাও আমাদের জায়গা থেকে সহযোগীতা করে আসছি। বর্তমানে বিভন্ন রোগে আক্রান্ত হয়ে আসলেই তাঁর জীবনটি অনেকটাই দূর্বিষহ হয়ে উঠেছে। এখন উনার চিকিৎসার জন্য অর্থের প্রয়োজন। উনার পক্ষ থেকে আমি সকলের সহযোগীতা ও দোয়া কামনা করছি।
এ সময় পরিবার, আত্মীয়-স্বজন ও তাঁর সহকর্মীগণ তাঁর জন্য সকলের দোয়া ও সহযোগীতা কামনা করেছেন। রোগীর মোবাইল নাম্বার : 01726377369, স্বজন : 01751209198

Please Share This Post in Your Social Media




© All rights reserved © 2021 Chapai Sangbad

Customized BY innovativenews